ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি | পরিচিতি | ইতিহাস | সুবিধা | টিকিটমূল্য [২০২১]
Skip to content
ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি | পরিচিতি | ইতিহাস | সুবিধা | টিকিটমূল্য [২০২১]

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি | পরিচিতি | ইতিহাস | সুবিধা | টিকিটমূল্য [২০২১]

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি

চলে এলাম আরো একটি নতুন আর্টিকেল নিয়ে। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু হলো ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি। বিষয়বস্তু সম্পর্কে জেনে হয়তো ইতিমধ্যেই বুঝে গেছেন আর্টিকেলটি ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেন বিষয়ক হতে চলেছে। মূলত ময়মনসিংহ টু ঢাকা রুটে নিয়মিত হারে ঠিক কোন কোন ট্রেনগুলি যাতায়াত করে সে-সম্পর্কে আজ আমরা জানার চেষ্টা করবো। পাশাপাশি প্রতি ট্রেন অনুযায়ী কতৃপক্ষ টিকিটমূল্য হিসেবে কত টাকা চার্জ করে, কখন কোন ট্রেন ছাড়ে তা নিয়েও আলোচনা করবো। 

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের পরিচিতি

শুরুতেই ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের পরিচিতি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। মূলত ময়মনসিংহ টু ঢাকা রুটে ৫ টি ট্রেন চলাচল করে। এসব ট্রেনের নামগুলি হলো: 

  • ঈশা খান এক্সপ্রেস (৪০)
  • মহুয়া এক্সপ্রেস (৪৪)
  • দেওয়ানগঞ্জ এক্সপ্রেস (৪৮)
  • বালাকা কমিউটর (৫০)
  • জামালপুর কমিউটর (৫২)
  • ভাওয়াল এক্সপ্রেস (৫৬)

ঈশা খান এক্সপ্রেস (৪০)

শুরুতে বাংলাদেশ রেলওয়ে পরিচালিত একটি যাত্রীবাহী ট্রেন হিসেবে এই ট্রেনটি বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করতে সক্ষম হয়েছিলো। যদিও বর্তমানে ট্রেনটিকে বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। বলে রাখা ভালো ২০২০ সালের ১২ মার্চ তারিখে ট্রেনটিকে বন্ধ ঘোষনা করা হয়। সার্ভিস চলাকালীন সময়ে এই ট্রেনটি নিয়মিত ১০ ঘটা ৩০ মিনিটের পথ অতিক্রম করতো। যার গন্তব্য হিসেবে কাজ করতো ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে শুরু করে ময়মনসিংহ জংশন স্টেশন পর্যন্ত।

মহুয়া এক্সপ্রেস (৪৪)

ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে নেত্রকোণার মোহনগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত চলাচল করলেও এই ট্রেন কিন্তু ময়মনসিংহ টু ঢাকা রুটে যাতায়াত করে থাকে। যার কারণে এই ট্রেনটিকে ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনও বলা যায়। নিয়মিত ৬ ঘণ্টা ৩০ মিনিট পথ পাড়ি দিয়ে থাকে ট্রেনটি। যার রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে রয়েছে ঢাকা রেলওয়ে কতৃপক্ষ নিজেই। 

দেওয়ানগঞ্জ এক্সপ্রেস (৪৮)

দেওয়ানগঞ্জ বাজার থেকে ঢাকা রেলপথে এই ট্রেনটি সার্ভিস দিয়ে থাকে। এই ট্রেনটি সার্ভিস দেওয়ার নির্দিষ্ট সময় পরিসীমা হলো ৬ ঘন্টা। ময়মনসিংহ বাসীর ঢাকা যাওয়ার ক্ষেত্রে এই ট্রেনটি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। দেওয়ানগঞ্জ থেকে ঢাকা রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত প্রায় সকল স্টেশনকেই ট্রেনটি স্টপেজ হিসেবে নিয়মিত ব্যবহার করে আসছে। 

বালাকা কমিউটর (৫০)

বালাকা কমিউটর নামের এই ট্রেনটি বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়ে কতৃপক্ষ নিজেই রক্ষণাবেক্ষণ করে আসছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ থেকে সার্ভিস শুরু করা এই ট্রেনটির সার্ভিস টাইপ হলো কমিউটার। যা নিয়মিত হারে ৬ ঘন্টা সার্ভিস দিয়ে থাকে। এই ট্রেনটি জারিয়া ঝাঞ্জাইল রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে অন্য আরেকটি রেলওয়ে স্টেশনে তা শেষ করে। 

জামালপুর কমিউটর (৫২)

২৬ জানুয়ারি ২০২০ সালে জামালপুর কমিউটর নামক এই ট্রেনটি একটি আন্তঃনগর ট্রেন হিসেবে যাত্রা শুরু করে। চলতি পথে প্রায় ১০ টি স্টেশনকে ট্রেনটি স্টপেজ হিসেবে ব্যবহার করে থাকে। প্রায় ৬ ঘন্টা করে নিয়মিত হারে সপ্তাহে ৬ দিন ট্রেনটি সার্ভিস দিয়ে থাকে। সপ্তাহের ১ দিন অর্থ্যাৎ রবিবারে এই ট্রেনটি কোনো ধরণের সার্ভিস প্রদান থেকে বিরত থাকে। 

ভাওয়াল এক্সপ্রেস (৫৬)

নিয়মিত প্রায় ৮ ঘন্টার মতো সার্ভিস দিয়ে থাকে এই ভাওয়াল এক্সপ্রেস ট্রেন। তবে সার্ভিসের ধরণ হিসেবে এই ট্রেনটিকে মেইল ট্রেন হিসেবেও ধরে নেওয়া যায়। চলাচলেন পথের কথা যদি বলি তবে বলবো এই ট্রেনটু নিয়মিত নারায়ণগঞ্জ-বাহাদুরাবাদ ঘাট রেলপথ পাড়ি দিয়ে থাকে। 

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি 

আর্টিকেলের এই অংশে আমরা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট অর্থ্যাৎ ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি সম্পর্কে জানবো। 

  • ঈশা খান এক্সপ্রেস (৪০) ট্রেন ১২ঃ০০ মিনিটে যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ২৩ঃ০০ মিনিটে 
  • মহুয়া এক্সপ্রেস (৪৪) ট্রেন ১৭ঃ২২ মিনিটে যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ২১ঃ২৫ মিনিটে
  • দেওয়ানগঞ্জ এক্সপ্রেস (৪৮) ট্রেন ১৫ঃ৩৩ যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ১৯ঃ১৫ মিনিটে
  • বালাকা কমিউটর (৫০) ট্রেন ১৩ঃ৪৫ মিনিটে যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ১৭ঃ২৫ মিনিটে 
  • জামালপুর কমিউটর (৫২) ট্রেন ০৭ঃ৩৩ যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ১১ঃ১৫ মিনিটে 
  • ভাওয়াল এক্সপ্রেস (৫৬) ট্রেন ০৫ঃ৩০ মিনিটে যাত্রা শুরু করে তা শেষ করে ১১ঃ৪৫ মিনিটে

আশা করি যারা ময়মনসিংহ টু ঢাকা যাতায়াত করার ক্ষেত্রে ট্রেনের ব্যবহার করার চিন্তা করছেন তাদের জন্যে উপরের পয়েন্টগুলিই যথেষ্ট। সুতরাং সময় এবং টিকিটমূল্য অর্থ্যাৎ ব্যাটে-বলে মিলে গেলে ইজিলি যেকোনো একটি ট্রেনের সার্ভিস নিতে পারেন আপনিও! 

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সুবিধা 

  • ময়মনসিংহ টু ঢাকা নিরাপদ যাতায়াত 
  • সড়কপথে যাতায়াতের খরচের চাইতে অনেক সাশ্রয় 
  • পছন্দ অনুযায়ী সিট কিনতে পারার সুযোগ
  • অনলাইন টিকিট কেনার সুযোগ 
  • দেশের যেকোনো কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করার সুবিধা 
  • মনমতো ট্রেন সার্ভিস

ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের টিকিটমূল্য

আপনি কি ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের টিকিটমূল্য সম্পর্কে জানেন? যারা জানেন না আর্টিকেলের এই অংশটি তাদের জন্য। আলোচনার এই অংশে আমরা আলোচনা করবো ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সঠিক টিকিটমূল্য সম্পর্কে। যেখানে সিটের ক্যাটাগরির উপর ভিত্তি করে টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। 

  • শোভন সিটের দাম ১২০ টাকা
  • শোভন চেয়ার সিটের দাম ১৪০ টাকা
  • প্রথম সিটের দাম ১৮৫ টাকা
  • প্রথম বার্থ সিটের দাম ২৮০  টাকা
  • স্নিগ্ধা সিটের দাম ২৭১ টাকা
  • এসি সিটের দাম ৩২২ টাকা
  • এসি বার্থ সিটের দাম ৪৮৩ টাকা

বিঃদ্রঃ বলে রাখা ভালো, উপরের টিকিটমূল্যগুলি কেবল ময়মনসিংহ টু ঢাকা রুটে যাতায়াত করা সকল ট্রেন যাত্রীদের জন্যে নির্ধারিত। সুতরাং যারা কেবল ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় আসতে চাচ্ছেন তারাই এই প্রাইজে সিটের ক্যাটাগরির উপর ভিত্তি করে ট্রেনের টিকিট কিনে নিতে পারবেন। 

ইতি কথা

আশা করি আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাকে ময়মনসিংহ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি এবং পরিচিতসহ অন্যান্য তথ্য কালেক্ট করে নিতে সাহায্য করেছে। সাশ্রয়ী বাজেটে যেকোনো পছন্দের ট্রেনে আজ থেকেই যাতায়াত শুরু করে দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে ট্রেনের নিয়ম-কানুন এবং সচেতনতা সম্পর্কে সজাগ থাকবার অনুরোধ রইলো। হ্যাপি জার্নি। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *